বিয়ের আগে প্রিয়াঙ্কার খছেন 1২ কোটি!



[ad_1]

দিপীকা-রণবীরের পর প্রিয়াঙ্কা-নিকের বিয়েতে নতুন কিছু চমক থাকছে তা দেখার অপেক্ষায় আছেন সবাই. প্রিয়াঙ্কার বিয়ে শুরু হতে এখনো বেশ কয়েকদিন বাকি থাকলেও এরইমধ্যে ভক্তদের চমক দেওয়া শুরু হয়ে গেছে. রাজস্থানের যোধপুরের উমেদ ভবন প্রাসাদে হচ্ছে তাদের রাজকীয় বিয়ের আয়োজন. আলোর বন্যা প্রিয়াঙ্কার বাড়িতেও.

নিকের মা-বাবা ভারতের যাবেন আগামীকাল. এদিন থেকেই শুরু প্রিয়াঙ্কা-নিকের বিয়ের অনুষ্ঠান. পুরো উমেদ ভবন প্রাসাদটাই ভাড়া নিয়েছে প্রিয়াঙ্কার পরিবার. ২9 নভেম্বর থেকে 3 ডিসেম্বর পর্যন্ত বরাদ্দ নিয়েছেন এ যুগল. এই 5 দিন কাউকে ভাড়া দেওয়া হবে না এ প্রাসাদ. বিবাহপূর্ব অনুষ্ঠানের মধ্যে রয়েছে গায়ে হলুদ, সঙ্গীত ও মেহেদি. এ তিন অনুষ্ঠানই হবে মেহরনগড় দুর্গে. অন্য পর্যটকরা দুর্গটিতে ঢুকতে পারবেন না 3 দিন. এজন্য বিশাল অঙ্কের টাকা খরুন করতে হয়েছে প্রিয়াঙ্কা-নিককে.

উমেদ ভবন প্রাসাদে 64 টি বিলাসবহুল কক্ষ আছে. ২২ টি প্রাসাদ কক্ষ ও 4২ টি ঐতিহাসিক প্রাসাদ কক্ষ. এক রাতে প্রতিটি প্রাসাদ কক্ষের জন্য গুনতে হবে 47 হাজার 300 রুপি. আর ঐতিহাসিক কক্ষের জন্য এক রাতে দিতে হবে 65 হাজার 300 রুপি ভাড়া. তাছাড়া অন্যান্য সুবিধাসহ 5 দিনের জন্য ভাড়া খরেছে দিতে হবে 3 কোটি ২0 লাখ রুপি. এর বাইরে রয়েছে খাবার, আসবাবপত্রসহ অন্যান্য খরবেছে. সেটা মিলিয়ে 5 কোটি রুপি খেছে হবে জানিয়েছে হোটেল কর্তৃপক্ষ.

এদিকে মেহরনগড় দুর্গে অনুষ্ঠান করার জন্য উমেদ ভবন প্রাসাদে কমপক্ষে 40 টি কক্ষ ভাড়া নিতে হবে. খানে অতিরিক্ত খানে যোগ হবে 10 লাখ রুপি, যার ভেতর রয়েছে আলোকসজ্জা, মঞ্চসহ অন্যান্য খরচেছে. ক্যাটারিং খরচে প্রতিজনকে 18 হাজার রুপি করে দিতে হবে. সব মিলিয়ে ভেন্যু খরচসহ বিবাহপূর্ব অনুষ্ঠান সারতে 3 কোটি 93 লাখ রুপি খারে হচ্ছে এ তারকা জুটির. খাবার ও অন্যান্য খরবসহ সাড়ে 4 কোটি রুপি খবেছেন হবে!

প্রিয়াঙ্কা ও নিক প্রথমে রাজস্থানের উদয়পুরে অবতরণ করবেন. তারপর সেখান থেকে হেলিকপ্টারে চড়ে হবু বর-বধূ যাবেন উমেদ ভবন প্রাসাদে. হেলিকপ্টারটি ২9 নভেম্বর থেকে 3 ডিসেম্বর পর্যন্ত ভাড়া নেওয়া হয়েছে. সেখানে ভাড়া গুনতে হচ্ছে কোটিখানেক রুপি. সব মিলিয়ে বিয়ের আগেই 1২ কোটি রুপি খরচে হচ্ছে প্রিয়াঙ্কা-নিককে.

ইত্তেফাক / আরকেজি

[ad_2]
Source link